,
সংবাদ শিরোনাম :
«» ব্যাপক রদবদলের গন্ধ বাংলাদেশের রাজনীতিতেঃ মূল্যায়ন হতে পারে আত্মত্যাগী নেতাদের «» ব্রিজ ভেঙে পাথরবোঝাই ট্রাক খালে «» এক ম্যাচেই তিন রেকর্ড রোনালদোর! «» রোনালদোর অভাব বুঝতেই দিলেন না রোনালদোর দিবালা-মোরাতারা «» উপজেলা চেয়ারম্যানের ক্ষমতা–সংক্রান্ত বিধান বাস্তবায়নে নির্দেশ «» ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের আঞ্চলিক কার্যালয় উদ্বোধন «» শিক্ষামন্ত্রী-ভিসিরা বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে বৈঠকে «» স্বপ্ন দেখেন বুসকেতস মেসিকে ছাড়াও চ্যাম্পিয়নস লিগ নিয়ে «» বৈরাণ নদীর উপর নির্মিত ভাতকুড়া সেতু ভেঙে পড়ায় দুর্ভোগ গ্রস্থদের নৌকা দিয়ে পাশে দাঁড়ালেন “আরশেদ আলী রাসু” «» বৈঠক শুরু আজ ভোট ও আন্দোলনের কৌশল ঠিক করতে বিএনপির সিরিজ

তারাকান্দায় বালিখাঁ ইউঃ পরিঃ চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে সমুদ্র চুরির অভিযোগঃতুলকালামঃ তদন্তে সত্যতা মিলছেনা

প্রতিনিধি, তারাকান্দা (ময়মনসিংহ) \ ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার বালিখাঁ ইউঃ পরিষদ চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে উষার বানী পত্রিকায় প্রকাশিত দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত নিয়ে এলাকাজুড়ে তুলকালাম সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, উপজেরা নির্বাহী অফিসার, তারাকান্দা, ময়মনসিংহের গত ২৪আগষ্ট/২১ স্বাক্ষরিত স্বারক নম্বর, ০৫.৪৫.৬১.৮৮.০০৩.১৪.০০০.৫৩৩ মর্মে এক নোটিশে সূত্রঃ উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ময়মনসিংহ স্বাক্ষরিত স্বারক নং ৫১.০১.৬১.৬১০০.০০০০.২৭.৮১১.১৭.৫৮০ মর্মে নির্দিষ্ট পত্রিকায় প্রকাশিত দুর্নীতির অভিযোগ সরজমিনে তদন্ত কার্য সম্পাদন করণ নোটিশ প্রদান করে বলা হয় বালিখাঁ ইউপি চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে ঘর, এলজিএসপি, টিআর, কাবিখা, কাবিটা, ইজিপিপি, প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়ষ্ক ভাতা, বিধাব ভাতা, ভিজিএফ কার্ড সহ হত দরিদ্রদের জন্য সরকারের সকল প্রকার মানবিক সহায়তা কর্মসূচির সহযোগীতা পাইতে দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে মর্মে ২৬আগষ্ট/২১ ইউনিয়ন পরিষধ কার্যালয়ে উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার বিভাগ, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, ময়মনসিংহ। সরজমিনে তদন্ত করবেন বলে জানান দিয়ে বাস্তবায়িত কর্মসূচীর উপকার ভোগীর তালিকা, প্রকল্প তালিকা, ব্যাংক ডকুমেন্ট, মাষ্টাররোল, বিল ভাওচার, প্রকল্প বাস্তবায়ন সংক্রান্ত কাগজপত্র ডকুমেন্ট সহ নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়।
চেয়ারম্যান রেজাইল করিম (দুদু) ও সচিব হেলাল উদ্দিন জানান, উষার বানী পত্রিকার প্রকাশিত মিথ্যে সাজানো ষড়যন্ত্র মূলক খবরের প্রতিবাদ একাধিক দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। তারা আরো জানান প্রকাশিত মিথ্যাখবরের প্রতিবাদে শত শত উপকারভোগী নারী পুরুষ, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছেন। যাহা বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ছাপা হয়।
গত ২৬আগষ্ট/২১তদন্ত দিনে তদন্ত কর্মকর্তা একেএম গলিভ খাঁন উপ পরিচালক, স্থানীয় সরকার, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ময়মনসিংহ তদন্তস্থল বালিখাঁ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আসেন। কিন্তু অভিযোগকারীদের মধ্যে কেহই তদন্তে হাজির না হলেও তদন্ত থেমে থাকেনি। বিভিন্ন সেক্টরে উপকার ভোগীর প্রতিবন্ধী ভাতা, বিধাব ভাতা, ভিজিএফ সহ হত দরিদ্রেদের জন্য দেয়া সরকারের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির তদন্ত চলে। উপকারভোগীদের কথা চেয়ারম্যান ভাল মানুষ। তিনি কোন দুর্নীতি করেন নি।
তদন্ত সময়ে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজাবে রহমত, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এডভোকেট ফজলুল হক, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা রুবেল মন্ডল, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাকারিয়া আলম তালুকদার, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম। কর্মকর্তাদের একান্ত ষ্টাফ ইউপি সদস্য/সদস্যা সহ উপকারভোগী শত শত নারী পুরুষ। গত ৩ যুগের ইতিহাসে তারাকান্দায় মাঠ পর্যায়ে এত বিশাল তদন্ত কার্যক্রম চোঁখে পড়েনি।
গত ৪ সেপ্টেম্বর/২১ তদন্ত কর্মকর্তা বিভিন্ন বাস্তবায়িত প্রকল্প স্থল পরিদর্শন করেন। প্রকল্প গুলোর মধ্যে ছিল টিআর কর্মসূচির আওতায় হালেঙ্গা বিলের খাল খনন, এবং লক্ষিপুর গ্রামের রাস্তায় কালভার্ট স্থাপন, এলজিএসপির অর্থায়নে মালিডাঙ্গা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ফ্লোর নির্মান সহ নানা ধরনের কার্যক্রম, টাইলস ও রং করন। ইজিপিপি প্রকল্পের আওতায় পাগুলি গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শামছুল আলমের বাড়ীর সামনের রাস্তা ইটের সলিং এর পর থেকে কাছুর মোড়পর্যন্ত রাস্তা পুনঃ নির্মান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজাবে রহমত, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা রবেল মন্ডল, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাকারিয়া আলম তালুকদার, ট্যাগ অফিসার সহ ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম (দুদু) সচিব হেলাল উদ্দিন কর্মকর্তাবৃন্দ বিশেষ সহকারী প্রমুখ।
এসব প্রকল্প পরিদর্শনে দৃশ্যমান চিত্র প্রকল্প গুলোর সুষ্ঠ বাস্তবায়নের প্রমান মিলেছে। প্রকল্প সংশ্লিষ্ট এলাকার লোকজনের সাথে কথা হলে তারা এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের সুফলভোগ করছেন মত প্রকাশ করেন।
এদিকে পরপর ২ দিন তদন্ত হলেও অভিযোগকারী ইউপি সদস্য আবু বক্কর ছিদ্দিক, জালাল উদ্দিন, ফজল হককে তদন্ত নোটিশ দেয়া হলেও তারা কেহই তাদেও অভিযোগ প্রমানে তদন্ত অনুষ্ঠানে উপস্তিত হননি। অপর এক অভিযোগকারী মোফাজ্জল হোসেন জানান, তিনি কোন অভিযোগ করেননি। তাকে নিয়ে সংশিষ্টরা বø্যাকমেল করেছেন। এ নিয়ে তিনি ষড়যন্ত্রকারীদেও বিরুদ্ধে থানায় সাধারন ডাইরী করেছেন। যাহার নম্বর ৯০৭।
এ নিয়ে ওই ইউনিয়নের উপকার ভোগী শত শত নারী পুরুষ এবং প্রকল্প সংশিষ্ট লোকজন অভিযোগকারীদের হীন কর্মকান্ডে ও মিথ্যা অভিযোগের উদ্বেগ প্রকাশ করে এ ব্যাপারে উর্দ্ধতন কতৃপক্ষেও সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

যোগাযোগঃ

মীর প্লাজা ( ৩য় তলা ), ৮৮  সি কে, ঘোষ রোড , ময়মনসিংহ ।

মোবাইল: ০১৭১১-৬৮৪১০৪

ই-মেইল: matiomanuss@gmail.com