,
সংবাদ শিরোনাম :
«» রোগীদের সুস্থ্য করার হাসপাতাল যখন নিজেই অসুস্থ্য :ধোবাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে «» বিএনপির তর্জন-গর্জন শোনা যায়, বর্ষণ দেখা যায় না: সেতুমন্ত্রী «» বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বাকৃবি’তে গবাদিপশুর চিকিৎসা ও ভ্যাক্সিন প্রদান কর্মসূচি «» সম্মেলন ডেকে হেফাজতের আমির নির্বাচন করা হবে: বাবুনগরী «» নারকেলগাছে উঠে পড়লেন মন্ত্রী, গাছে বসেই সংবাদ সম্মেলন করলেন «» যে কারণে ইউএনও ওয়াহিদা জনপ্রশাসনে ওএসডি, স্বামী মেজবাউল হোসেনকে বদলি «» তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারী গ্রেপ্তার: মসজিদে বিস্ফোরণ «» মনে কষ্ট নিয়ে চলে গেলেন আল্লামা শফী, হাটহাজারীতে জানাজার পর দুপুরে দাফন «» আবারো ফিলিস্তিনিদের পাশে থাকার অঙ্গীকার সৌদি আরবের «» আগামী বছরের শুরুতে ঢাকা সফর করবেন এরদোয়ান

ময়মনসিংহে চাঞ্চল্যকর আজাদ হত্যায় জড়িত মেয়র টিটু গ্রুপের সন্ত্রাসী মানিকের ফোনালাপ ফাঁস

মাটি ও মানুষ ॥
আজাদ হত্যাকান্ডে জড়িত সন্ত্রাসী মানিকের ফোনালাপ ফাঁস। সে নিহত আজাদ শেখের সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে পরিচিত ছিল। আজাদ গ্রুপ সদস্য মানিক ময়মনসিংহ পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল গ্রুপে সম্পৃক্ত। আজাদ হত্যায় জড়িত খুনীদের প্রতি মোবাইল ফোনে সন্ত্রাসী মানিকের নির্দেশনামূলক কথোপকথন এর অডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। যা দৈনিক খবর ডট কম নামের একটি অনলাইন থেকে প্রচারিত হয়।অডিওটিতে শোনা যায় নিহত আজাদ শেখ এর গ্রুপ সদস্য কথিত আজাদ বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড মানিক হত্যার আগে খুনীদের কাছে আজাদের অবস্থান জানিয়ে দিয়ে আজাদকে খুন করার নির্দেশ দেয়।

এ অডিও থেকে এটাই প্রতিমান হয় যে আজাদ হত্যাকান্ডে তার নিজ গ্রুপের সন্ত্রাসীরাই জড়িত। যার নেতৃত্ব দেয় মানিক। যে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু ও জেলা আওয়ামী লীগ প্রস্তাবিত সহ সভাপতি ব্যবসায়ী নেতা আমিনুল হক শামীম এর গ্রুপে সম্পৃক্ত। আজাদ হত্যাকান্ডের পর এই রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাথে তাকে মানববন্ধনসহ আজাদ হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে একাধিক কর্মসূচীতে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দিতে দেখা গেছে। এই গ্রুপটি মহানগর যুবলীগ সদস্য সাজ্জাদুল আলম আজাদ শেখ হত্যাকান্ডের দায় প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক নেতৃত্বের উপর চাপাতে সচেষ্ট রয়েছে। যা নিয়ে ময়মনসিংহের জনমনে শুরু থেকেই সন্দেহ দানা বাধেঁ।

 

৩১ জুলাই দুপুরে আজাদ এর কিলিং মিশনের মাস্টার মাইন্ড মানিক খুনীদের সাথে মোবাইল ফোনে বলে ‘ আজাদ বাড়িতে আছে যা এলাকা শ্মশান, খাইয়া (হত্যা) লা গা যা…. কাম কইরা লা….’। মানিকের ফোনালাপের এই অডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে। শহর জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এতে আজাদ শেখ হত্যাকান্ড এর নেপথ্য কাহিনী নাটকীয় মোড় নিয়েছে। ফাঁস হয়ে গেছে হত্যার আজাদ হত্যার প্রকৃত রহস্য। ধরা পড়ে গেছে ভয়াবহ ষড়যন্ত্র।

 

এর আগে মেয়র গ্রুপের পক্ষে আজাদ শেখ হত্যা মামলায় মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্তকে প্রধান আসামি করে, মহানগর যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক রাসেল পাঠান, জেলা ছাত্রলীগ সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মন্তু বাবুকে জড়িত করতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছিল।
পর্যবেক্ষক মহলের মতে, হত্যাকান্ডের ১৩ দিনের মাথায় হত্যাকান্ডে জড়িত মানিকের অডিও ফাঁস হওয়ার মধ্য দিয়ে আজাদ হত্যাকান্ডের প্রকৃত রহস্য উন্মোচিত হয়ে পড়েছে। আজাদের পক্ষের লোকেরাই ষড়যন্ত্র করে হত্যাকান্ড ঘটিয়ে এর দায় ধর্মমন্ত্রীর পুত্র মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত ও তার অনুসারীদের উপর চাপিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে। যা এই ফোনালাপের অডিওতে পরিস্কার হয়ে গেছে।

 

আজাদ গ্রুপের সেকেন্ড ইন কমান্ড মানিক ইতিপূর্বে অস্ত্রসহ ধরা পড়েছিল। আজাদ বাহিনীর অস্ত্র ভান্ডর রয়েছে তার নিয়ন্ত্রনে। সে আজাদ হত্যাকান্ডের পর ধর্মমন্ত্রীর বাড়ি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল এর উপস্থিতিতেই মাইকে বক্তব্য রাখে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেই আজাদ হত্যাকান্ডে পরিকল্পনাকারীদের স্বরূপ বেড়িয়ে আসবে।
এ ব্যাপরে ময়মনসিংহের জনপ্রিয় দৈনিক মাটি ও মানুষ পত্রিকায় গত ১০ আগষ্ট “আজাদ হত্যার নাটকীয় মোড়, বিস্ফোরক তথ্য, সাথের লোকই জড়িত” এবং ১১ ও ১২ই আগস্ট “আজাদ হত্যার মেইন কালপ্রিন্ট” ও “মালিক খলনায়ক” শিরোনামে খরব অনুসন্ধানী খবর প্রকাশ করে ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial