,
সংবাদ শিরোনাম :

মিমাংশা করতে গিয়ে আসামি হলো ছাত্রলীগ নেতা আদনান!

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥

হুকুমের আসামি করা হয়েছে আদনান হাসানকে। সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত শরীফুর ইসলাম শরীফের স্ত্রী আকলিমা খাতুন বাদী হয়ে থানায় মামলা করছেন। মামলার ১নং আসামি করা হয় ছাত্রলীগ নেতা আদনানকে। আহত শরীফের সাথে প্রতিপক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা থামাতে ঘটনাস্থালে উপস্থিত ছাত্রনেতা আদনান তাৎক্ষনিক মধ্যস্থতা করেন। দুপক্ষের মধ্যে উদ্ভূত উত্তেজনা মিমাংশা করতে যাওয়াটাই অপরাধ হয়ে গেল আদনানের।
গত ১৯ অক্টোবর দূর্গাপুজার শেষ দিন বিজয়ায় শহরের জুবলীঘাট ধর্মশালা পূজামন্ডপের সামরে দর্শকদের মদ্যে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে শরীফ বনাম সানি গং।
শরীফের স্ত্রী মামলার বাদী এ সময় ঘটনাস্থলে ছিলেন। তিনি বলেন-বখাটেরা ঘটনাস্থলে উশৃঙ্খলতা প্রদর্শন করলে শরীফ প্রতিবাদ জানায়। এ সময় দুপক্ষে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছাত্রনেতা আদনান পরিস্থিতি নিরসনে ভূমিকা রাখেন।
অথচ ওই দিন রাত সাড়ে ৯ টায় দিকে শরীফ বাসায় ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা তার গতিরোধ করে সশস্ত্র হামলা চালায়। এতে রক্তাক্ত জখমসহ গুরুতর আহত হন শরীফ। তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৬নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনায় আহত শরীরের স্ত্রী বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় ৫৪নং মামলা তাং ২০/১০/২০১৮ দায়ের করেন। মামলা অন্যান্য আসামিরা হলেন-সানী, জনি, আরাফাত, ইফতি, সেকান্দর।
এদিকে, ছাত্রলীগ নেতা আদনান রাতে হামলার সময় ঘটনাস্থালে ছিলেন না। তিনি ছিলেন প্রতিমা বিসর্জন ঘাটে। অপরাপর নেতাদের সাথে। অথচ তার নামে ১নং আসামি করে মিথ্যা মামলা হয়েছে।
জনপ্রিয় ছাত্রনেতা আদনানের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি তুলে পোষ্টারিং করেছে ময়মনসিংহ ছাত্রলীগ। সেই সাথে ফেইসবুকসহ বিভিন্ন যোগযোগ মাধ্যমে এই ছাত্রনেতার নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial