,
সংবাদ শিরোনাম :
«» এক বহুরূপী সাহেদ আলোচনায়, বাকীরা কোথায়? «» ধোবাউড়ায় অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে তৈরী হচ্ছে বেকারি পন্য «» দুর্গাপুরের সারে ৩ বছর যাবত শিকলবন্দি বৃদ্ধ ফুল মিয়া «» ফুঁসে উঠেছে তিস্তা, একদিনেই পানি বেড়েছে ৪৭ সেমি «» করোনা শনাক্তে প্রতারণায় কঠোর অবস্থানে সরকার: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী «» পাপুল কুয়েতের নাগরিক প্রমাণিত হলে তাঁর আসন শূন্য হবে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী «» মা যখন চাঁদের বুড়ি- সন্তান তখন কাঠবিড়ালী «» দুর্গাপুরে বেড়েগেছে অবৈধ লড়ি- ট্রাক্টরের দৌরাত্ব- ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী «» উত্তর মেসিডোনিয়ায় ১৪৪ বাংলাদেশিসহ ২১১ জন অভিবাসন প্রত্যাশীকে উদ্ধার «» বান্দরবানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৬ জন নিহত

বাংলাদেশ কৃষকলীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার বার্ষিক বনভোজন-২০২০

শরাফত আলী শান্ত, মাটি ও মানুষ।। বাংলাদেশ কৃষকলীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার আয়োজনে ২২ ফেব্রুয়ারি শনিবার বঙ্গবন্ধু’র জন্ম শতবার্ষিকী বছরব্যাপী উদযাপনের লক্ষ্যে ময়মনসিংহ জেলার প্রতিটি উপজেলার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও জেলার সাংবাদিক নেতৃবৃন্দকে নিয়ে প্রতিটি ইউনিয়ন পর্যায়ে সুবিধা বঞ্চিত কৃষকদের ভবিষ্যৎ ভাবনায় উন্নত বীজ, আধুনিক কৃষি সরঞ্জাম, অধিক ফলন, সুদবিহীন লোন, বিভিন্ন ধরনের প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বনভোজনের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা ও নেতৃবৃন্দদের দায়িত্ব বণ্টন কর্মসূচি নালিতাবাড়ী পানিহাটায় দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয়।

 

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিটি পদক্ষেপ সফল করার অঙ্গীকারবদ্ধ হয়ে শপথ গ্রহণ করেন ময়মনসিংহ জেলা কৃষকলীগ নেতৃবৃন্দ। উক্ত সফরে ময়মনসিংহ জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম মিন্টু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান ও কর্মসূচি পরিচালনা করেন জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ভিপি গোলাম মোস্তফা বাবুল। আমন্ত্রিত প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাব-এর সভাপতি,গণমাধ্যম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, দৈনিক মাটি ও মানুষ-এর সম্পাদক-প্রকাশক একেএম ফখরুল আলম বাপ্পী চৌধুরী।


সাধু আন্দ্রিয়ের মিশন স্কুল পানিহাটা,নালিতাবাড়ী,শেরপুর, স্কুলটি পরিদর্শনে গিয়ে শিক্ষকবৃন্দ ও ছাত্রছাত্রীদের শৃঙ্খলা দেখে সকলে মুগ্ধ-অভিহিত। স্কুলের সামনের শহীদ মিনারটি সেঁজে ছিল নতুন রঙে। ভাষার মাসে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর জন্যে যেন মন ব্যাকুল হয়ে উঠে। স্কুলে শিক্ষকবৃন্দ ও ছাত্রছাত্রীদেরকে নিয়ে ভাষার গল্প,কবিতা আবৃত্তি, জাতীয় সংগীত পাঠের মধ্য দিয়ে অনেকটুকু সময় যেন নিমিষেই চলে যায়।


আলোচনা সভা ও বার্ষিক বনভোজনের শুরুতেই শিক্ষক-ছাত্রছাত্রীদেরকে নিয়ে বিনম্র শ্রদ্ধাভরে ভাষা শহীদ ও ভাষা সৈনিকদের স্মরণ করি পানিহাটা পাহারের উপরে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানো শহীদ মিনারে। এই শ্রদ্ধা কোন দায়বদ্ধতা থেকে নয়, পেশাগত কারণে কারো নির্দেশনায়ও নয়। এ যেন হৃদয়ের অন্তস্থল থেকে গভীর আবেগের একটু বহিঃপ্রকাশ।

 

আলোচনা কর্মসূচি শেষে বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, র‌্যাফেল ড্র ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial