,
সংবাদ শিরোনাম :
«» রাজধানীতে পুলিশ-ছাত্রদল ব্যাপক সংঘর্ষ, টিয়ারশেল-গুলিতে আহত ৩৫ «» ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক «» রাজধানীর নীলক্ষেত মোড় দ্বিতীয় দিনের মতো অবরোধ করে প্রতিবাদ শিক্ষার্থীরাদের «» আইপি টিভি ‘নক্ষত্র বাংলা’র লোগো উন্মোচন «» আইজিপির সঙ্গে বিএনপির বৈঠক বৃহস্পতিবার «» শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি’র বাণী «» রাজনৈতিক বেনিয়াদের বিরুদ্ধে ঐক্যের ডাক, উচ্ছ্বাসে উত্তাল বিদ্রোহী মৌজা আকুয়া «» দি সবুজ বাংলা কুরিয়ার সার্ভিস লিঃ ময়মনসিংহ শাখার শুভ উদ্ভোধন «» মার্চ-এপ্রিলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত- প্রধানমন্ত্রী «» দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের দুই ধাপ অবনতি

চাঞ্চল্যকর তথ্য, মেসিকে বার্সায় দেখতে চান না ৬১ শতাংশ সমর্থক

মাটি ও মানুষ: অবসান হল ফুটবলের মহাতারকা লিওনেল মেসি ও স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা দ্বন্দ্ব। টানা দশ দিনের নানা গুঞ্জন, জল্পনা আর অস্থিরতার পর আরও এক মৌসুম ‘ভালোবাসার ক্লাবে’ই থেকে যাওয়ার ঘোষণা দেন মেসি। এরপরই অবসান হয় বার্সা-মেসি দ্বন্দ্ব।

 

 

মেসি ছাড়া বার্সেলোনা কেউ কোনোদিন কল্পনাও করতে পারেনি। শেষ এক দশক মেসি ছিলেন বার্সেলোনার প্রাণ। দলটির ধ্রুবতারা চলে যাচ্ছেন এটা বিশ্বের কোটি কোটি ভক্তের জন্য শকওয়েব হয়ে দেখা দিয়েছে। আবার উল্টোচিত্রও ছিল।

 

মেসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পক্ষে বিপক্ষে মত জানতে চাওয়া হয়েছিল ফুটবলপ্রেমিদের কাছে। অনলাইনে ভোটাভুটির আয়োজন করেছিল স্পেনের ক্রীড়া গণমাধ্যম এএস। ভোটাভুটিতে ৬১.৬ শতাংশ সমর্থকরা চেয়েছেন মেসি বার্সেলোনা ছেড়ে চলে যাক। ৩৮.৪ শতাংশ সমর্থকরা চেয়েছিলেন মেসি বার্সেলোনায় থাকুক। মোট ২৬০০০ সমর্থকদের ভোট গ্রহণ করে এএস।

 

 

এএস বলছে, মেসির প্রতি ভক্তদের ভালোবাসা থাকলেও সমর্থকরা চান মেসি ভিন্ন কিছুর স্বাদ গ্রহণ করুক। বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি ইংলিশ লিগে বা ইতালি লিগে যুক্ত হলে নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার সুযোগ পাবেন। যদিও এখনও সেই সুযোগটি রয়েছে।

 

 

স্পেনের ক্লাবটিতে আরো একটি মৌসুম থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেসি। ২০২০-২১ মৌসুম থাকবেন বার্সেলোনায়। এরপর নতুন কোনো ক্লাবে যুক্ত হতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial