,
সংবাদ শিরোনাম :
«» ২০৩০ সালের মধ্যে সব মাধ্যমিক বিদ্যালয় হবে ডিজিটাল: প্রধানমন্ত্রী «» ছোটদের সঙ্গে বড়রাও ! স্বাস্থ্যের তলায় তলায় দুর্নীতি বছরের পর বছর «» ধোবাউড়ায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিত করণ ও কর্মপরিকল্পনা সভা অনুষ্টিত «» কিশোর গ্যাংয়ের দুই সদস্য গ্রেপ্তার: উত্তরখানে সোহাগ হত্যা «» ধর্ষণের অভিযোগটি ভিপি নূরের বিরুদ্ধে নয় «» সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মূল ঘটনার বিকৃতভাবে উপস্থাপন করায় প্রতিবাদ «» সাংবাদিক ও সাংবাদিকতা কি ? «» ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন «» ইসরায়েল ইস্যুতে প্রকাশ্যে সৌদি বাদশাহ-যুবরাজের বিরোধ! «» শতকোটি টাকা, অফিসে এলাকায় সাম্রাজ্য স্বাস্থ্য-শিক্ষা ডিজির ড্রাইভারের

ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতি অভিযোগে সদস্যবৃন্দের সংবাদ সম্মেলন

মাটি ও মানুষ: ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানের বিরুদ্ধে দূর্নীতি,সেচ্ছাচারীতা, অশালীন আচরন, আত্মীয়করন এবং প্রকল্প গ্রহনে একক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য অনাস্থা প্রস্তাব আনয়ন করেছেন জেলা পরিষদের সদস্য বৃন্দ।

 

 

৯ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর ১ টায় ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সন্মেলনে এক সংবাদ জেলা পরিষদের সদস্যরা এ অভিযোগ আনেন।

 

 

সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ আব্দুল মালেক। এসময় উপস্থিত ছিলেন মোঃ মমতাজ উদ্দিন মন্তা, আছমা উল হোছনা,দিলরুবা আক্তার(কাজল), তাজুল আলম বাবুল,মোঃ একরাম হোসেন,মোঃ রুহুল আমিন, মোঃ মহিবুল হক, মোঃআবদুল্লা অাল মামুন,মোঃ মোস্তফা কামাল,এইচ এম খায়রুল বাশার, আঞ্জুমান আরা,মোঃ মোজাম্মেল হক, মোঃ অাসাদুজ্জামান অাকন্দ সাগর, বেগম জোসনারা মুক্তি, মোঃআবু বক্কর ছিদ্দিক, এ এসএম মজিবুর রহমান প্রমুখ।

 

সংবাদ সন্মেলনে ২০ সদস্যর মধ্যে ১৭ জন উপস্থিত ছিলেন বলে উদ্যেক্তারা দাবী করেন।

 

সংবাদ সন্মেলনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতি, সেচ্ছাচারীতা, অশালীন আচরন, আত্মীয়করন এবং প্রকল্প গ্রহনে একক সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিয়ে সরকারের সুনাম বিনষ্ট করার অভিযোগ আনেন।
অভিযোগকারীরা বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান।

 

 

তথ্যসূত্রে জানা যায়, সুবিধাবাদীদেরকে অনিয়মের সুযোগ-সুবিধা না দেওয়ায় তারা একজোট হয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এমন মিথ্যা ও  ভিত্তিহীন অভিযোগ আনেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা ও কার্যক্রম বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর এমনটাই তথ্য পাওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial