,
সংবাদ শিরোনাম :
«» শান্তর আগমনে নেতাকর্মীরদের জন স্রোত; বোররচরে উপ-নির্বাচনে নৌকার জনসভা «» ধর্ষণসহ সকল নারী নির্যাতন প্রতিরোধে দেশব্যাপী একযোগে বিট পুলিশিং সমাবেশ «» পর্দার অন্তরালে থেকে যাওয়া একজন প্রকৃত বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতির আবেদন পরিবারের «» আমির আহমেদ চৌধুরী রতনের মৃত্যুতে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপির শোক «» ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাব-এর ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত, ৩১ জন মহৎ প্রাণ করোনা-যোদ্ধাকে সম্মাননা প্রদান «» ট্রাম্প ভার্চ্যুয়াল বিতর্কে যোগ দিতে রাজি না হওয়ায়, ট্রাম্প–বাইডেনের দ্বিতীয় বিতর্ক বাতিল «» ফেনী জেলায় বিশ্ব ডিম দিবস উদযাপন «» এবছর হচ্ছে না এইচএসসি পরীক্ষা, জেএসসি-এসএসসি’র ভিত্তিতে ফল – শিক্ষামন্ত্রী «» বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী প্রকাশে ইতিহাস বিকৃত থেকে রক্ষা পেয়েছে জাতি : প্রধানমন্ত্রী «» ধর্ষণের প্রতিবাদে ফেসবুকে আঁধার নেমে এসেছে

শান্তর আগমনে নেতাকর্মীরদের জন স্রোত; বোররচরে উপ-নির্বাচনে নৌকার জনসভা

মাটি ও মানুষ: আবারও সেই গণজোয়ার, জনস্রোত। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে অতীতের মতোই প্রচন্ড জনপ্রিয়তার বলয় নিয়ে মাঠে নেমেছেন ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত।

 

আগামী ২০ অক্টোবর ময়মনসিংহ ৩নং বোররচর ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন। চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল আজিজ সরকারের জন্য ভোট চেয়ে বিশাল জনসভায় বক্তব্য রাখেন মোহিত উর রহমান শান্ত। সভার প্রধান অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ আওয়ামী লীগের প্রাণ পুরুষ মাটি ও মানুষের নেতা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। সহ রাজনীতিক অধ্যক্ষ আমীর আহমেদ চৌধুরী রতন এর মৃত্যুর শোকাবহতায় তিনি সভায় উপস্থিত হতে পারেনি।

 

 

মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত আগমনে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বোররচের প্রতিটি জনপথ লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে। হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সাধারণ জনতার উপস্থিতিতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা রূপ নেয় জনসমুদ্রে। মঞ্চে দাড়িয়ে বলিষ্ঠ কন্ঠে চিরচেনা চরাঞ্চলবাসীর কাছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পিতা অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের অধিকার নিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট চান মোহিত উর রহমান শান্ত ।

 

 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের সারা দেশে উন্নয়নের কথা বলে শেষ করা যাবে না। শুধু চরাঞ্চল ও বোররচরের উন্নয়নের কথাই যদি বলি তবে নৌকা মার্কায় চাইছি। কারণ জননেত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহের প্রতিটি চাওয়াকে উন্নয়নে পুরন করেছেন। উন্নয়নের সে ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে নৌকার প্রার্থী আজিজ সরকারের পক্ষে ভোট চাইছি।

 

 

মোহিত উর রহমান শান্ত বলেন, আমার পিতা অধ্যক্ষ মতিউর রহমান দীর্ঘ ৪০ বছর ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নেতৃত্ব দিয়েছেন। উনার নেতৃত্বের মহিরুহের সমকক্ষ এখনও কেউ হয়নি। তিনি নির্ধারন করে দিয়েছেন কে নেতা হবেন, কে মেয়র হবেন, কে চেয়ারম্যান হবেন, কে সাংসদ হবেন। অধ্যক্ষ মতিউর রহমান চেয়েছেন বলেই ইকরামুল হক টিটু মেয়র প্রথমবার, তিনি চেয়েছেন বলেই আরশাফ উপজেলা চেয়ারম্যান, তিনি চেয়েছেন বলেই সাঈদ সিরতার চেয়ারম্যান হয়েছেন। আমি তার সন্তান নাম ব্যবহার করে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হয়েছি। আব্দুল আজিজ সরকার অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সহযোগী হয়ে কাজ করে গেছেন দীর্ঘ সময় ধরে।

 

 

তিনি বলেন, প্রয়াত চেয়ারম্যান শওকত আলী বুদু চাচা এই ইউনিয়নের জন্য অনেক কিছু করেছেন। যিনি আওয়ামী লীগের জন্য একজন নিবেদিত কর্মী ছিলেন। আজকে সেই মানুষটির যায়গায় যদি আপনারা অন্য দল করা কাউকে বসান, তাদের জন্য কাজের পরিধি সীমিত হয়ে যাবে। সঠিক উন্নয়ন এখানে হবে না। আর আজিজ সরকার দলের অধিকার খাটিয়ে বরাদ্দের বাইরেও উন্নয়ন কাজের বরাদ্দ ইউনিয়নবাসীর জন্য আনতে পারবেন। এই মানুষটি টাকা দিয়ে আপনাদের কাছ থেকে ভোট কিনতে পারবে না। কারণ তিনি অন্য প্রার্থীর মতো টাকাওয়ালা নন। তিনি কাজের মাধ্যমে সরকারে সকল সুবিধা নিশ্চিত করতে পারবেন। তাই আজিজ সরকারকে আপনারা ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন সে দাবি জানাচ্ছি।

 

 

বোররচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আহবায়ক সুলতান আহাম্মেদ সরকারের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ হোসাইন,মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি-অধ্যাপক গোলাম ফেরদৌস জিল্লু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-হোসাইন জাহাঙ্গীর বাবু, জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সভাপতি-অধ্যাপক গোলাম সারোয়ার, জেলা যুবলীগ আহবায়ক-এড. আজহারুল ইসলাম।

 

 

বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি- আব্দুস সালাম সরকার, জেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক আখেরুল ইমাম সোহাগ, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা হক কলি, ১১ নং ঘাগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান সরকার সাজু, ৫ নং সিরতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু সাঈদ, ভবখালী ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল, মহানগর যুবলীগ সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক-রাসেল পাঠান, মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগ আহবায়ক-মোফাখখার হোসেন খোকন, জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক-সরকার মো: সব্যসাচী, মহানগর ছাত্রলীগ ছাত্রলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক-ফয়জুর রাজ্জাক উষাণসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial